“জান্নাতি ফেরকার দায়িত্ব পালন করছে হেযবুত তওহীদ”-হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম

[ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিমকে দর্শক গ্যালারি থেকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয়। এমনই একটি প্রশ্নের উত্তরে তিনি যা বলেছিলেন তা এখানে তুলে ধরা হলো। – বি.স.]

প্রশ্ন: অনেকেই বলে মুসলমান জাতি এমনিতেই সর্বদা হাজারো ফেরকা ও মাজহাবে বিভক্ত। আপনারা আবার ঐক্যবদ্ধ হওয়ার কথা বলে আরেকটি ফেরকার সৃষ্টি করছেন। এ বিষয়ে আপনাদের বক্তব্য কি?

উত্তর: আমরা প্রায় সময়ই এ প্রশ্নের সম্মুখীন হই। বলা হয় এমনিতেই তো জাতি হাজার হাজার ফেরকা মাজহাবে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে। শিয়া-সুন্নি দ্বন্দ্ব বন্ধ হয় না, হানাহানি চলছে। শাফেয়ি, হাম্বলি, হানাফি, ওহাবি, কওমি, সুন্নি, আহলে হাদিস ইত্যাদি আরো বহু দল রয়েছে, আবার আরেকটা দল তৈরি করার কী দরকার ছিল। বস্তুত আমরা নতুন কোনো ফেরকা সৃষ্টি করার জন্য দাঁড়াইনি। আল্লাহর রসুল (সা.) তওহীদের ওপর এ জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে দিয়ে গিয়েছিলেন। ঐক্যবদ্ধ হওয়া আর ঐক্যবদ্ধ করার প্রক্রিয়া হচ্ছে তওহীদ, যেটা রসুল (সা.) দেখিয়ে গেছেন। দুর্ভাগ্যবশত সেই তওহীদ থেকে আমরা পুরো জাতিই সরে গিয়েছি। সরে যাওয়ার কারণে আমাদের কারো পরিচয় হয়েছে শিয়া, কারো সুন্নি, কারো শাফেয়ি ইত্যাদি তরিকা, ফেরকা বা মাজহাব। আমাদের কথা হচ্ছে এই, আবারো ওই সকল ফেরকা মাজহাবের অনুসারী সবাইকে এক জায়গায় আসতে হবে। শিয়াকে বলছি – তুমি যতই মাতম করো, আলীকে (রা.) সেরা বলে দাবি করো, আল্লাহর হুকুম প্রত্যাখ্যান করার কারণে তুমি ইসলাম থেকে বেরিয়ে গিয়েছ। সুন্নিকে বলছি, হে সুন্নি! তুমি যতই বল আবু বকর (রা.) সেরা, ওমর (রা.) সেরা, যত হাজার কিতাব রচনা করো, শিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করো, আমরা বলব এটা ঠিক নয়। আল্লাহর হুকুম প্রত্যাখ্যান করে ইসলাম থেকে তুমিও বেরিয়ে গিয়েছ। আল্লাহ এই ফেরকা মাজহাবের অনুমোদন কখনোই দেন নি।
আল্লাহ কোর’আনে পরিষ্কার বলেছেন, তোমরা দীনকে প্রতিষ্ঠা কর এবং মতভেদ সৃষ্টি করো না। আমরা দীন প্রতিষ্ঠা বাদ দিয়ে, খ্রিস্টানদের তৈরি দীন মেনে নিয়ে হাজার হাজার মতভেদে লিপ্ত রয়েছি। কাজেই হেযবুত তওহীদের ভূমিকা হচ্ছে জান্নাতি ফেরকার ভূমিকা। জান্নাতি ফেরকার দায়িত্ব হবে একটা। বাকি ৭২ ফেরকাকে বলা যে তোমরা সবাই আসল জায়গায় আসো, ঐক্যবদ্ধ হও, একটা জায়গায় এসে দাড়াও। সে জায়গার নাম হচ্ছে ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ অর্থাৎ আল্লাহর হুকুম ছাড়া কারো হুকুম মানবো না।’ কাজেই হেযবুত তওহীদ নতুন কোনো ফেরকার সৃষ্টি করছে না। হেযবুত তওহীদ সবাইকে সেই আসল যায়গায় আনার জন্য সংগ্রাম চালাচ্ছে।