যশোরে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে আমির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল যশোর জিলা স্কুল অডিটোরিয়ামে ‘সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ধর্মব্যবসা, সম্প্রদায়িকতা ও মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এ সম্মেলনে খুলনা বিভাগীয় হেযবুত তওহীদের সকল পর্যায়ের আমির, কেন্দ্রীয় ও জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে হেযবুত তওহীদের সদস্য-সদস্যা, শুভাকাঙ্ক্ষীদের বিরাট সমাগম ঘটে।
সম্মেলনে মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের সর্বোচ্চ নেতা ও এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- হেযবুত তওহীদের সাধারণ সম্পাদক মো. মশিউর রহমান, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সাইফুর রহমান, ডা. মাহবুব আলম মাহফুজ, খুলনা জেলা সভাপতি হাসানুর রহমান রনি, যশোর জেলা সভাপতি ফিরোজ মেহেদি, ঝিনাইদহ জেলা সভাপতি শামীম আশরাফ, নড়াইল জেলা সভাপতি হারুন অর রশিদ বাবু।
হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম তার বক্তব্যে বলেন, কোনো বস্তু, প্রাণী বা শক্তি যে বৈশিষ্ট্য বা গুণ ধারণ করে সেটাই হচ্ছে তার ধর্ম। আগুনের ধর্ম পোড়ানো। পোড়ানোর ক্ষমতা হারালে সে তার ধর্ম হারালো। অথচ প্রচলিত ধারণা হচ্ছে- যে ব্যক্তি নির্দিষ্ট লেবাস ধারণ করে সুরা-কালাম, শাস্ত্র মুখস্থ বলতে পারে, নামাজ-রোজা, প্রার্থনা করে সে-ই ধার্মিক। এটা সঠিক ধারণা নয়। মানুষের প্রকৃত ধর্ম আসলে কী? মানুষের ধর্ম হচ্ছে মানবতা। অর্থাৎ যে ব্যক্তি অন্যের দুঃখ-কষ্ট হৃদয়ে অনুভব করে এবং সেটা দূর করার জন্য আপ্রাণ প্রচেষ্টা চালায় সে-ই ধার্মিক। মানবজাতির সুখ শান্তিই হচ্ছে ধর্মের আসল উদ্দেশ্য।

See Photos
See Video