1234

ধর্মব্যবসা, ধর্ম নিয়ে অপরাজনীতি আর জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে ‘এক জাতি এক দেশ, ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশ’ গড়ে তোলার জন্য কাজ করে যাচ্ছে দৈনিক দেশেরপত্র ও দৈনিক বজ্রশক্তি। এই কার্যক্রমকে আরো গতিময় করে তুলতে সারা দেশে বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে পত্রিকা দুইটির কার্যালয় উদ্বোধন করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় ভোলা সদরে উদ্বোধন করা হয়েছে দৈনিক দেশেরপত্র ও বজ্রশক্তি’র জেলা কার্যালয়। এই উপলক্ষে গতকাল জেলা শহরের নতুন বাজারে কবি মোজাম্মেল হক টাউন হলে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দেশেরপত্রের জেলা প্রতিনিধি আব্দুস সোবাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ভোলা পৌরসভার মেয়র মোঃ মনিরুজ্জামান মনির।  প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, “দৈনিক দেশেরপত্র ইসলামের পক্ষে না বিপক্ষে তা বিচার করতে হবে পত্রিকাটির লেখার উপর ভিত্তি করে, পত্রিকাটির কলাম পড়ে। নিন্দুকদের কথায় প্রভাবিত হয়ে পত্রিকাটিকে ইসলামবিদ্বেষী মনে করা ঠিক হবে না।” তিনি বলেন, “পত্রিকাটির বিভিন্ন কলাম পড়ে বোঝা যায়, তারা ইলমামের বিরুদ্ধে নয় বরং প্রকৃত ইসলামের পক্ষে। তার ধর্মের নামে ব্যবসার বিরুদ্ধে, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে।”  তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, “ভোলার মাদকের বিস্তার ও তার প্রতিকারে করণীয় সম্পর্কে এবং ভোলার উন্নয়মূলক কর্মকাণ্ড পত্রিকার পাতায় তুলে ধরা হবে বলে আশা করছি।” অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম বলেন, ‘মানবতার কল্যাণে যারা কাজ করে, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ নিরসনে যারা কাজ করে, তাদের শত্র“র অভাব নেই। আপনাদেরও শত্র“র অভাব নেই।’ তিনি বলেন, “বলতে দ্বিধা নেই এই মহতী অনুষ্ঠানে না আসার জন্য কয়েকজন সাংবাদিক আমাকে অনুরোধ করেছিলেন এই বলে যে, পত্রিকাটি ইসলামের বিরুদ্ধে লিখে, আপনি সেখানে যাবেন না। কিন্তু আমি এসেছি। এবং এসে দেখলাম তারাই না এসে মারাত্মক ভূল করেছে। এখানে এসে ডকুমেন্টারি ফিল্ম দেখে আমি অত্যন্ত খুশি হয়েছি। দেশেরপত্র যে কাজ করে তা জাতির জন্য বিশাল কাজ।’ নিজেকে দেশেরপত্রের একজন নিয়মিত পাঠক উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ পত্রিকা পড়ে দেখতে পেরেছি ধর্ম ব্যবসায়ীদের প্রকৃত ভয়ঙ্কর রূপ। সকলের অবশ্যই পত্রিকাটি নিয়মিত পড়া উচিত।” তিনি আশ্বস্ত করে বলেন, ‘আপনারা উদ্দীপনা নিয়ে কাজ করুন। আমরা সর্বাবস্থায় আপনাদের সহযোগিতা করে যাব।’ নিন্দুকদের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘ভালো কাজে অনেককেই পাওয়া যায় না, কিন্তু মন্দকর্মে অনেকে সিদ্ধহস্ত।’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার শফিজুল ইসলাম, জেলা মহিলা যুবলীগের সভানেত্রী খাদিজা আক্তার স্বপ্না, কমিউনিস্ট পার্টির জেলা সভাপতি মোবাশ্বর উল্যাহ চৌধুরী, দৈনিক দেশেরপত্রের উপদেষ্টা মসীহ উর রহমান, নির্বাহী সম্পাদক শফিকুল আলম উখবাহ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শাহিন আফছার, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবিদুল আলম আবিদ প্রমুখ।