গেণ্ডারিয়ায় জনসচেতনতামূলক আলোচনা সভা

সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতা, ধর্ম ব্যবসা, ধর্ম নিয়ে অপ-রাজনীতিসহ সকল প্রকার অন্যায়ের বিরুদ্ধে ও ন্যায়ের পক্ষে দেশের সকল মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে মানবতার কল্যাণে নিবেদিতে আন্দোলন হেযবুত তওহীদ। এরই ধারাবাহিকতায় গত বৃধবার ১৭ জানুয়ারি রাজধানীর গেণ্ডারিয়া থানার ধূপখোলা মাঠের মেয়র সাইদ খোকন সেন্টার কাউন্সিলর কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪৫, ৪৬, ৪৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হেলেনা আক্তার। এতে মুখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হেযবুত তওহীদের সহকারী সাহিত্য সম্পাদক রাকীব আল হাসান।
রাকীব আল হাসান তার বক্তব্যে বলেন, আজ আমাদের সমাজের কোথাও শান্তির লেশমাত্র নেই। সমাজের সর্বত্র আজ অন্যায়-অবিচারের জয়-জয়কার। দুর্বলের উপর সবলের অত্যাচার, দরিদ্র্যের উপর ধনীর বঞ্চনায়, শাসিতের উপর শাসকের অবিচারে পৃথিবী আজ পরিপূর্ণ। চারদিক থেকে আর্তমানবতার হাহাকার উঠছে ‘শান্তি চাই, শান্তি চাই’। কিন্তু সেই কাক্সিক্ষত শান্তির দেখা আজও পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন, অনেকে আজ স্রষ্টার দেওয়া ধর্মকে তাদের হীন স্বার্থে ব্যবহার করছে। ধর্মকে নিয়ে তারা ব্যবসা করছে, রুটি-রুজির মাধ্যম বানিয়েছে। অথচ কোনো ধর্মেই এ ঘৃণ্যতম কাজের স্বীকৃতি নেই। তাই আমাদের উচিত হবে ধর্ম ব্যবসায়ীদের কথায় প্রভাবিত না হয়ে নিজেদের ধর্ম বিশ্বাসের সঠিক প্রয়োগ করা। তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা নির্মূলে হেযবুত তওহীদের কার্যক্রমের সাথে ঐক্যবদ্ধভাবে সহযোগিতার আহ্বান জানান।
প্রধান অতিথিও তার বক্তব্যে হেযবুত তওহীদের চলমান কার্যক্রমকে স্বাগত জানিয়ে উপস্থিত সকলকে যাবতীয় সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদকের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- হেযবুত তওহীদের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মো. শরিফুল ইসলাম, কদমতলী থানা শ্রমিক লীগের সাবেক সভাপতি মো. আ. হামিদসহ এলাকার সর্বস্তরের জনতা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হেযবুত তওহীদের যাত্রাবাড়ী শাখা সভাপতি আরিফ হোসেন সজল।

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ