মুন্সিগঞ্জ, লৌহজং থানার জিডি-৪৭ | হেযবুত তওহীদ

মুন্সিগঞ্জ, লৌহজং থানার জিডি-৪৭

সারকথা
মুন্সিগঞ্জ, লৌহজং থানার জিডি-৪৭, তারিখ- ০২/১২/২০০৫ ইং, ধারা- ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ৫৪।
[১৯৭৪ বি.ক্ষ.আ. ৩(২) ধারা মতে ১ (এক) মাস এবং ৩(১) ধারা মতে ৩ (তিন) মাস আটকাদেশ]

সন্দিগ্ধ আসামী ১. মোঃ মসীহ উর রহমান
২. মোঃ আলী হোসেন
৩. মোঃ জাহাঙ্গির জোয়ার্দার
৪. মোঃ আব্দুল মতিন
৫. মোঃ আনিছুর রহমান সাকিব
৬. মোঃ মাহে আলম
৭. মোঃ সাজেদুল ইসলাম
৮. মোঃ তানজিল হোসেন বিথু

প্রকৃত ঘটনাঃ এ যামানার এমাম এমামুয্যামান জনাব মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নী’র অনুসারীগণ মুন্সীগঞ্জ জেলাধীন লৌহজং থানা এলাকায় হেযবুত তওহীদের পক্ষ থেকে সর্বসাধারণের মাঝে প্রকৃত এসলাম প্রচারের জন্য গিয়ে অত্র থানা সদরস্থ বাজার, হলহিয়া বাজার ও কুমারভোগ স্কুলের সামনে শান্তিপূর্ণ উপায়ে প্রকাশ্যে সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে প্রকৃত এসলাম প্রচার করার সময় স্থানীয় কতক লেবাসধারী মোল্লার উস্কানীমূলক, বেআইনী ফতোয়ায় ও প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় স্থানীয় উচ্ছৃঙ্খল কতক যুবক ও স্বার্থান্বেষী কতক লোক ১৭/০৮/২০০৫ ইং তারিখে সারাদেশে এক সাথে সিরিজ বোমা বিষ্ফোরণের ঘটনাকে উৎস হিসাবে নিয়ে থানায় ও র‌্যাব অফিসে জঙ্গি সদস্যরা অত্র এলাকায় নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে এসলামের অপব্যাখ্যা করে লিফলেট বিতরণ করছে বলে বানোয়াট তথ্য দিলে থানা পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা জে.এম.বি সদস্য সন্দেহে হেযবুত তওহীদ সদস্যদের গ্রেফতার করে সন্দিগ্ধ আসামী হিসাবে আদালতে সোপর্দের পর উর্ধŸতন কর্তৃপক্ষ আটকাদেশ জারি করে। উক্ত আটকাদেশ-এর বিরুদ্ধে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে আবেদন করা হলে মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের দ্বৈতবেঞ্চ নিুোক্ত ফাইন্ডিং রায়ে বর্ণনা করেন। অত্র জিডির দায় থেকে ১৮/১২/২০০৫ ইং তারিখে অব্যাহতির আদেশ প্রাপ্ত হলেও ডিটেশন থাকায় সকল আসামীকেই প্রায় সাড়ে চার মাস কারাভোগ করতে হয়েছে।

Mr. justice Mohammad Abdur Rashid and Mr. justice Md. Mizanur Rahman Bhuiyan,

High Court Divission of Bangladesh Supreme Court. Cri. Misc. Case no : 1184/2006,

Order dated: 30/06/2006

 

Order : In the ground, it is stated that the detanue was a member of `Hizboth Towheed’. He along with other were distributing handbill inviting to here the call of real Islam.

Distribution of the leaflet as mentioned in the ground dose not if so fecto incur any liability to detained unless a law and order situation arose there upon.