বই ও পুস্তিকাসমূহ

সওমের উদ্দেশ্য

লেখক হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম
প্রকাশকাল ৩০ জুন, ২০১৬
প্রকাশক তওহীদ প্রকাশন
ISBN 978-984-8912-40-9
ভাষা বাংলা
Formate 978-984-8912-40-9

সওমের উদ্দেশ্য

সওম শব্দের অর্থ আত্মসংযম, নিজেকে নিয়ন্ত্রণ (Self Control) করা, বিরত থাকা। রোযা তথা সওমের উদ্দেশ্য এই যে, মো’মেন ব্যক্তি সারাদিন পানাহার ও জৈবিক চাহিদা পূরণ থেকে নিজেকে বিরত রাখবেন, নিজের আত্মাকে শক্তিশালী করবেন। তিনি অপচয় করবেন না, পশুর ন্যায় উদর পূর্তি করবেন না। তিনি হবেন নিয়ন্ত্রিত, আত্মত্যাগী। বঞ্চিত, ক্ষুধার্ত, দরিদ্র মানুষের দুঃখ অনুভব করে তিনি তাদের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য নিজেকে বিলিয়ে দেবেন। আল্লাহর হুকুম মানার ক্ষেত্রে যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকবেন অর্থাৎ তিনি হবেন তাকওয়াবান। তার এই চরিত্রেরপ্র তিফলন ঘটবে সামাজিক ও জাতীয় জীবনে। গড়ে উঠবে এমন এক সমাজ যেখানে সবাই একে অপরের জন্য ত্যাগ স্বীকার করতে উৎসাহী হবে, বিরাজ করবে পরস্পর সহমর্মিতা, সহানুভূতি, ভ্রাতৃত্ব। প্রতিষ্ঠিত হবে শান্তি।
কিন্তু আজকের বাস্তবতা এই যে, বর্তমানে এই মৌলিক শিক্ষা হারিয়ে সওম বা রোযা যেন হয়ে গেছে কেবল ‘না খেয়ে থাকা’র নামান্তর। দেখা যায়, রমজান আসলেই মুসলিমদের মধ্যে হুলুস্থুল পড়ে যায়। নিত্য প্রয়োজনীয় প্রতিটি দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়ে হয়ে ওঠে আকাশছোঁয়া। সংযমের মাস এলেই মুসলিমদের সংযমের সব বাঁধ যেন ভেঙে যায়। মানুষ আত্মকেন্দ্রিকতা এবং স্বার্থপরতার ঊর্ধ্বে ওঠতে পারে না। ক্ষুধার্ত, হতদরিদ্র মানুষের দুঃখ অন্যরা অনুভব করে না। ফলে তাদের ভাগ্য পরিবর্তনেও তারা সচেষ্ট হয় না। কেবল সওয়াব ও আত্মপ্রচারের আশায় কিছু দান-খয়রাত করতে দেখা যায়। সমাজে অন্যায়-অবিচার আগের মতোই চলমান থাকে। সত্য-মিথ্যা, ন্যায়-অন্যায়ের বোধ অর্থাৎ তাকওয়া সৃষ্টি করতে ব্যর্থ আজকের এই রোযা বা সওম।
প্রশ্ন হচ্ছে, আল্লাহ যেখানে কোরআনে বলেছেন, তাকওয়া সৃষ্টির উদ্দেশ্যেই তিনি সওমকে ফরজ করেছেন (সুরা বাকারা- ১৮৩), সেখানে এই উদ্দেশ্যই যখন বাস্তবায়িত হচ্ছে না, তখন আল্লাহর কাছে আমাদের সারাদিন না খেয়ে থাকার মূল্য কতটুকু? আল্লাহর রসুল (স.) বলেছেন, “এমন এক সময় আসবে যখন মানুষ সওম রাখবে কিন্তু সেটা হবে কেবল না খেয়ে থাকা (অর্থাৎ সওমের উদ্দেশ্যই পূরণ হবে না)।” তবে কি আজ সেই সময় উপস্থিত? বিস্তারিত জানতে বইটি পড়ুন। বইটির অনন্য বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, সওমের খুঁটিনাটি মাসলা-মাসায়েলের বিবরণী নয়, বরং এর মূল উদ্দেশ্য (আকিদা) কী সে সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়েছে। কেন বর্তমানে সমাজে সওমের শিক্ষার প্রতিফলন নেই আর কিভাবে সওমকে তার প্রকৃত অবস্থানে নিয়ে যাওয়া যায়, কোরআন-হাদিস, ইসলামের প্রকৃত আকিদার আলোকে অত্যন্ত যৌক্তিকভাবে তা উপস্থাপন করা হয়েছে। একজন সচেতন মুসলিমের কোনোভাবেই উচিত হবে না বইটি এড়িয়ে যাওয়া।

প্রকাশিত বইসমূহ