যোগ দিন | হেযবুত তওহীদ

অঙ্গীকার পত্র

আল্লাহর তওহীদ ভিত্তিক সত্যদীন পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠার জন্য আল্লাহ তাঁর শেষ নবীকে যে পাঁচ দফার কর্মসূচি দান করেছিলেন এবং নবী তাঁর জীবনে যে কর্মসূচি মোতাবেক সংগ্রাম করে পৃথিবী থেকে চোলে যাবার সময় যে কর্মসূচি মোতাবেক সংগ্রাম চালিয়ে যাবার জন্য তাঁর উম্মাহর ওপর দায়িত্ব দিয়ে গেলেন, সেই কর্মসূচিভিত্তিক অঙ্গীকার পত্র।

১. আমি এ আন্দোলনের অন্যান্য সদস্য-সদস্যাদের সঙ্গে ইস্পাতের মতো ঐক্যবদ্ধ থাকবো। ঐক্য নষ্ট হয় এমন কোন কথা বোলব না বা কাজ করব না। কোন ব্যাপারে দ্বিমত পোষণ করব না। মতভেদের কোন কারণ উঠলেই চুপ হোয়ে যাব এবং ঐ ব্যাপারে কোন কথা না বোলে নেতার সিদ্ধান্তের ওপর ছেড়ে দেব এবং তারপর নেতার সিদ্ধান্ত স্থির হোয়ে গেলে জান-মাল করবানী করে হলেও সে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত করব। আমি বিশ্বাস করব যে, এ আন্দোলনের অন্যান্য সদস্য-সদস্যারা আমার ভাই-বোন, তারা আমার রক্তের সম্পর্কের চেয়েও আপন।

২. নেতা কখন কোন্ আদেশ নির্দেশ দেন সে জন্য আমি সর্বদা সজাগ ও সচেতন থাকবো।

৩. নেতার আদেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করব। নেতা কোন আদেশ দিলে পছন্দ বা অপছন্দ হোক, সঠিক বা ভুল মনে হোক, বিন্দুমাত্র ইতস্ততঃ না করে সে আদেশ পালন করব। তাতে সম্পত্তির ক্ষতি হয় হোক, জান যায় যাক বা থাক, কিছুরই পরওয়া করব না। শুধুমাত্র ফরদে আইনের বিরুদ্ধে ছাড়া আর কোন আদেশ অমান্য করব না। নেতার আদেশ হলে সুন্নাহ-নফল এবাদত স্থগিত রাখবো। নেতা একবার নিয়োজিত হোয়ে গেলে তিনি যোগ্য কি অযোগ্য দেখব না; তার আদেশ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা পালন করব। বিপদ আপদের, ঝড়-বৃষ্টির কোন পরওয়া করব না।

৪. আমি বিশ্বাস করব যে, আমি নিজে এবং এ আন্দোলনের অন্যান্য সদস্য-সদস্যারা হেদায়াতপ্রাপ্ত অর্থাৎ আল্লাহর দেয়া সঠিক আকীদায়, সঠিক পথে, সঠিক দিক নির্দেশনায়, সেরাতুল মুস্তাকীমে প্রতিষ্ঠিত বা প্রতিষ্ঠিত হবার চেষ্টা করছি। এই হেদায়াতে যারা নেই, অর্থাৎ বাকী দুনিয়ার সমস্ত মানুষ থেকে আমি ভিন্ন ও বিচ্ছিন্ন। ওদের মধ্যে বাস করলেও আমি ওদের একজন নই। আকীদার বিকৃতি ও হেদায়াতের অভাবের কারণে ওরা আল্লাহ-রসুলকে বিশ্বাস করে সালাহ্ (নামাজ), সওম (রোযা), হজ্ব, যাকাত ও বহু নফল এবাদত করে গেলেও ওগুলো কোন কাজে আসবে না। আমি তাদের সাথে কোন এবাদত করব না। আমি এবাদত করব শুধু এই আন্দোলনের ভাই ও বোনদের সঙ্গে। আমি বর্তমানের বিকৃত এসলাম থেকে হেজরত করলাম। আমি কোন রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নেব না।

৫. আমি সর্বদা মনে রাখব যে উপরের ঐ ঐক্য, ঐ শৃংখলা, ঐ আনুগত্য, ঐ হেজরতের একমাত্র উদ্দেশ্য হোচ্ছে আল্লাহর তওহীদ, সেরাতুল মুস্তাকীম অর্থাৎ প্রকৃত দীনুল হক, দীনুল কাইয়্যেমাকে পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম, জেহাদ; এবং একথাও মনে রাখব যে ঐ ঐক্য, ঐ শৃংখলা, ঐ আনুগত্য, ঐ হেজরতের যে কোন একটি দুর্বল হয়ে গেলে জেহাদে আর বিজয় সম্ভব নয়। আরও মনে রাখবো, আল্লাহর রসুল বোলেছেন, যে বা যারা ঐ ঐক্য, ঐ শৃংখলা, ঐ আনুগত্য, ঐ হেজরত ও জেহাদের এই পাঁচ দফা কর্মসূচির ভ্রাতৃত্বের বন্ধনী থেকে এক বিঘত পরিমাণও বিচ্যুত হবে বা সোরে যাবে, তার বা তাদের গলা থেকে এসলামের বন্ধন খুলে যাবে, যদি না সে তওবা করে আবার এই কর্মসূচির বন্ধনে ফিরে আসে এবং যে বা যারা অন্য কোন কর্মসূচি গ্রহণের জন্য ডাক দেয়, সে বা তারা নিজেদের যত বড় মোসলেমই মনে করুক, যত সালাহ্ (নামায) পড়ুুক ও যত সওম (রোযা) রাখুক, যত এবাদতই করুক, তারা জাহান্নামের জ্বালানী পাথরে পরিণত হবে।