বাউনিয়া বাজারে জঙ্গিবাদবিরোধী সুধী সমাবেশ | হেযবুত তওহীদ

বাউনিয়া বাজারে জঙ্গিবাদবিরোধী সুধী সমাবেশ

(বাম থেকে) হেযবুত তওহীদের ঢাকা মহানগরীর আমীর মোহাম্মদ আলী হোসেন, হেযবুত তওহীদের আমীর মসীহ উর রহমান, দৈনিক বজ্রশক্তির ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি শহীদুল ইসলাম, তুরাগ থানা আওয়ামী লীগ নেতা দিলার হোসেন, দৈনিক বজ্রশক্তির বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুল হক বাবুল, মাওলানা নূর হোসেন।
(বাম থেকে) হেযবুত তওহীদের ঢাকা মহানগরীর আমীর মোহাম্মদ আলী হোসেন, হেযবুত তওহীদের আমীর মসীহ উর রহমান, দৈনিক বজ্রশক্তির ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি শহীদুল ইসলাম, তুরাগ থানা আওয়ামী লীগ নেতা দিলার হোসেন, দৈনিক বজ্রশক্তির বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুল হক বাবুল, মাওলানা নূর হোসেন।

হেযবুত তওহীদের আমির মসীহ উর রহমান বলেন, বর্তমানে জঙ্গিবাদের নামে যে অমানবিক পৈশাচিকতা, ভয়াবহতা চলছে তা ইসলামের শিক্ষা নয়। বরং এটা ইসলামের গায়ে সন্ত্রাসের কালি লেপন করছে। তিনি বলেন, এটা এই দেশের বিরুদ্ধে এবং পবিত্র ধর্মের বিরুদ্ধে এক গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। ১৬ জুলাই, ২০১৬ রোজ শনিবার রাজধানীর তুরাগ থানাধীন বাউনিয়া বাজারস্থ বঙ্গবন্ধু সৈনিক ক্লাবে আয়োজিত “জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ-সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ” শীর্ষক সুধী সমাবেশে তিনি এই কথা বলেন।

জনাব মসীহ উর রহমান এসময় বলেন, “আজ আমাদের দেশ সন্ত্রাসবাদে আক্রান্ত। সম্প্রতি গুলশানে যে ভয়াবহ হামলা হয়েছে, শোলাকিয়ায় যে হামলা হয়েছে তা আমরা ইতোপূর্বে কখনো দেখিনি। এতদিন আমরা এ ধরনের ঘটনা দেখে এসেছি মধ্যপাচ্যে, ইউরোপে। অর্থাৎ এতদিন যেটা ইরাক, সিরিয়া আর ইউরোপ-আমেরিকার সমস্যা ছিল সেটা এখন বাংলাদেশের সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমরা হেযবুত তওহীদ আন্দোলন গত কয়েক বছর ধরে হাজার হাজার সভা-সেমিনার, আলোচনা অনুষ্ঠান করে এই ব্যাপারে আমাদের আশঙ্কার কথা প্রকাশ করে এসেছি। আমরা বলেছি, যেভাবে একটার পর একটা মুসলিম দেশে আক্রমণ করা হচ্ছে, জঙ্গিবাদের ক্ষেত্র তৈরি করে দেশগুলো ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে, বাংলাদেশকেও নিশানা করা হতে পারে। আজকে অত্যন্ত বেদনাদায়ক কথা হলো, আমাদের প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশ সত্যি সত্যিই জঙ্গিবাদের কালো থাবায় আক্রান্ত হয়েছে। এই জঙ্গিবাদের বিষক্রিয়া থেকে জাতিকে রক্ষা করা সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

হেযবুত তওহীদের আমীর বলেন, “এই অবস্থায় আমাদের সাধারণ মানুষের করণীয় নির্ধারণ করা জরুরি হয়ে পড়েছে। আমরা হেযবুত তওহীদ স্পষ্ট করে বলতে চাই, এই আঘাত কেবল দেশের বিরুদ্ধে নয়, এই আঘাত ইসলামের বিরুদ্ধেও। এরকম জঘন্য পৈশাচিক কর্মকাণ্ড ঘটিয়ে, বর্বরতার চূড়ান্ত পরিচয় দিয়ে হামলাকারীরা বলছে, তারা আল্লাহর রাস্তায় জেহাদ করছে। পশ্চিমা পদলেহী বহু গণমাধ্যম ও ইসলামবিদ্বেষীরা দিন-রাত প্রচার চালাচ্ছে, ইসলাম মৌলবাদী ধর্ম, কোরআন দ্বারা উদ্বুদ্ধ হয়ে তারা এসব করছে। তারা এই সন্ত্রাসের নতুন নাম দিচ্ছে “ইসলামিক সন্ত্রাস”। অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে ইসলামের অমানবিক বর্বরতম ঘটনাগুলোর কলঙ্ক চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে আমাদের পবিত্র ধর্মের উপর, কোর’আনের উপর, আল্লাহ ও তাঁর রসুলের উপর। কিন্তু এটা আমরা চলতে দিতে পারি না।” তিনি বলেন, “এই অবস্থায় মো’মেনদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে সোচ্চার কণ্ঠে এই কথাটা বলতে হবে যে, না, তোমরা যেটা বলছ সেটা ঠিক নয়। আল্লাহ হক, তাঁর রসুল হক, কেতাব হক, দীন হক। নবী করিম (স.) যে জাতি গঠন করেছিলেন সেটা ছিল হক। আজকে ইসলামের নামে যারা মানুষ হত্যা করছে, বিদেশি, ভিন্ন ধর্মাবলম্বী ও ভিন্ন মতাদর্শীদের কুপিয়ে, জবাই করে হত্যা করছে, তারা এই জাতির কেউ নয়, তারা নিজেরা বুঝুক আর না বুঝুক, তারা ইসলামের ঘোর শত্রু। তারা পৃথিবীর সাম্রাজ্যবাদীদের টোপ হয়ে ইসলামকে কলুষিত করার কাজ করে যাচ্ছে। তারা যে ইসলামের কথা বলে সেটা ইসলাম নয়।”

জনাব মসীহ উর রহমান বলেন, “প্রশ্ন হচ্ছে, একজন মুসলমান কেন সন্ত্রাসী হবে? আল্লাহ ও তাঁর রসুলের প্রতি ঈমান থাকা সত্ত্বেও, তাঁদের প্রতি গভীর ভালোবাসা থাকা সত্ত্বেও এই মানুষগুলো কেন এমন কাজ করবে যা প্রকারান্তরে ইসলামের সর্বনাশ ডেকে আনবে? বাস্তবতা এই যে, মানুষ যখন প্রকৃত সত্যের সন্ধান না পায়, তার আত্মা যখন বিচলিত থাকে তখন খুব সহজেই তাকে বিভ্রান্ত করে বিপথে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়। আপনারা নিজেরা বিচার করুন, আজকে পৃথিবীময় আমরা যে ইসলাম দেখছি সেটা কি রসুলের আনীত ইসলাম? আল্লাহর রসুলের ইসলাম বর্বর আরবদের সভ্য করেছিল। আজকের ইসলাম আমাদের বর্বরতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। রসুলের ইসলাম ঐক্যহীন, গোত্রে গোত্রে কলহে লিপ্ত জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিল, পৃথিবীর সবচেয়ে পশ্চাৎপদ জাতিকে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে অধিষ্ঠিত করেছিল। আর আজকে আমরা দলে দলে বিভক্ত হয়ে নিজেদেরকে হত্যা করছি, নিজেরা কামড়াকামড়ি করে আবার পৃথিবীর লাঞ্ছিত, অপমানিত জাতিতে পরিণত হয়েছি। আমরা কি নিজেদের আজকের এই অবস্থার কারণ বিশ্লেষণ করেছি? যদি করতাম তবে দেখতাম, আমাদের পবিত্র ধর্ম আজ তার স্বস্থানে নেই। ধর্মের নামে আজ কেউ ব্যবসা করছে, কেউ অপ-রাজনীতিতে একে ব্যবহার করছে, কেউ সন্ত্রাস বিস্তারে একে ব্যবহার করছে। তবে কি আমরা আমাদের চোখের সামনে এভাবে এই জাতিকে ধ্বংস হয়ে যেতে দেব? আমরা তা হতে দিতে পারি না। আজ সময় এসেছে সত্যিকার ইসলাম আর বিকৃত ইসলামের মধ্যে সুস্পষ্ট রেখা টানার। ইসলামকে আবার তার মহিমান্বিত রূপে ফিরিয়ে আনার দায়িত্ব আমাদের সকলের।”

তিনি বলেন, “আজ আমাদের ধর্ম আক্রান্ত, আমাদের দেশ আক্রান্ত। এই ভূ-খণ্ডকে নিয়ে সাম্রাজ্যবাদীরা শুরু করেছে নতুন সমীকরণ। তারা এ জায়গাকে তাদের নিরাপদ বিচরণক্ষেত্র বানাতে চাচ্ছে। লক্ষ লক্ষ মানুষের রক্তে অর্জিত এ ভূ-খণ্ডের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে যদি আজ আমরা ব্যর্থ হই, তবে আমাদের না থাকবে রাজনৈতিক পরিচয়, না থাকবে ধর্ম পরিচয়। সুতরাং এই ভূ-খণ্ডকে রক্ষা করা আজ একদিকে আমাদের দেশ ও জাতির প্রতি গুরুদায়িত্ব, অন্যদিকে এটাই আজ আমাদের সবচেয়ে বড় ঈমানী দায়িত্ব। আজ আমরা হেযবুত তওহীদ মানুষকে এই জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে, সাম্রাজ্যবাদীদের চক্রান্তের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে যাচ্ছি। আমরা ধর্মের প্রকৃত শিক্ষার উপর মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমাদের এ কাজে আমরা আপনাদের সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি। কারণ এটা আমাদের একার পক্ষে সম্ভব নয়। জাতির এই সংকট মোকাবেলার দায়িত্ব আমাদের প্রত্যেকের।”

সুধী সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর হেযবুত তওহীদের আমির মোহাম্মদ আলী হোসেন, দৈনিক বজ্রশক্তির ভাম্যমান প্রতিনিধি শহীদুল ইসলাম, তুরাগ থানা আওয়ামী লীগ নেতা দিলার হোসেন, দৈনিক বজ্রশক্তির বিশেষ প্রতিনিধ আব্দুল হক বাবুল, মাওলানা নূর হোসেন প্রমুখ।

আনুষ্ঠানে আগত বক্তাগণ

মসীহ উর রহমান
বক্তব্য রাখছেন হেযবুত তওহীদের আমীর মসীহ উর রহমান
তুরাগ থানা আওয়ামী লীগ নেতা দিলার হোসেন
বক্তব্য রাখছেন তুরাগ থানা আওয়ামী লীগ নেতা দিলার হোসেন

 

 

 

 

 

 

 

 

অনুষ্ঠানে আগত অন্যান্য অতিথিবৃন্দ

অন্যান্য অতিথিদের একাংশ
অন্যান্য অতিথিদের একাংশ
অন্যান্য অতিথিদের একাংশ
অন্যান্য অতিথিদের একাংশ

 

 

 

 

 

 

মিডিয়ায় প্রচার

 

 

Search Here

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ

বরিশালে জঙ্গিবাদবিরোধী সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত

September 22, 2016

জঙ্গিবাদবিরোধী আদর্শ সর্বস্তরের মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে বর্তমানে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে চলছে দেশব্যাপী সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদবিরোধী নানামুখী কার্যক্রম। এরই ধারাবাহিকতায় বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলায় ‘জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ-সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ’ এই স্লোগানে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখ সকালে উজিরপুর উপজেলার লঞ্চঘাট থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হয়ে উজিরপুর বাজার প্রদক্ষিণ করে টেম্পুস্ট্যান্ড মোড়, উজিরপুর থানা, […]

আরও→

চট্টগ্রামে বাংলাবাজারে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে হেযবুত তওহীদের সমাবেশ

September 8, 2016

  জঙ্গিবাদবিরোধী আদর্শ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে দেশব্যাপী মানবতার কল্যাণে নিবেদিত হেযবুত তওহীদ আন্দোলনের চলমান কার্যক্রমের অংশ হিসাবে চট্টগ্রামে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে এক সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষে বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করা হয়। গত ৮ সেপ্টেম্বর বিকালে চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়েজীদ বোস্তামী থানাধীন বাংলাবাজার এলাকার ডেবারপাড় ব্যবসায়ী কল্যাণ সমবায় সমিতির সামনে উক্ত সুধী সমাবেশের আয়োজন […]

আরও→